মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

ভাষা ও সংস্কৃতি

বৃটিশ আমলে ১৯২১ সালে বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনে মরহুম সর্ব জনাব খান মোহাম্মদ দারাজ হোসেন  খান, ফজর  উদ্দিন তালুকদার, এম কে রহিম, ডাঃ কছির উদ্দিন প্রমূখ ব্যক্তি বর্গগণের নেতৃত্বে তদানিন্তন পলাশবাড়ীর নেতৃবৃন্দ স্বাধীন পলাশবাড়ী ষ্টেস্ট ঘোষণা করেন ও বৃটিশ সরকারের অফিস আদালত কোট কাচারী বয়কোট করে সংগ্রাম পরিষদের আওতায় জুরির মাধ্যমে মামলা মোকদ্দমা নিস্পত্তির জন্য আদালত গঠন  এবং অফিসের হাট নামক স্থানে কার্যালয় প্রতিষ্ঠা করে স্বাধীন পতাকা উড়িয়ে স্বাধীন পলাশবাড়ীর কার্যক্রম পরিচালনা করেন। স্বাধীন পলাশবাড়ী ষ্টেস্ট এর পতাকা ছিল ডানে মসজিদ,বামে মন্দির উপরে অর্ধচন্দ্র এবং নীচে একটি নদী ও তার তীরবর্তী জমিতে ধানের কিছু চারাগাছ অংকিত ছিল।স্বাধীন পলাশবাড়ী ষ্টেস্টের একটি বিপ্লবী শান্তি সেনা বাহিনী ও একটি সেচ্ছা সেবক বাহিনী গঠন করা হয়েছিল। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে যারা আত্নহতি দিয়েছেন তাদের স্মৃতি স্তম্ভ বধ্যভূমি ১নং কিশোরগাড়ীতে রহিয়াছে।

 

এ অঞ্চলের মানুষের ভাষা বাংলা। এ অঞ্চলে বৈশাখ মাসে বৈশাখী মেলা বসে। এছাড়াও পৌষ পার্বণ ও নবান্ন উৎসব পালন করে থাকে।